মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাদুল্লাপুর উপজেলার পটভূমি

উপজেলার পূর্বে গাইবান্ধা সদর, দক্ষিণে পলাশবাড়ী এবং পশ্চিমে পীরগঞ্জ বেষ্ঠিত ১৯১৩ সালে সাদুল্লাপুর উপজেলা গঠিত  হয়। ১১টি  ইউনিয়ন ও ১৬৬টি মৌজা নিয়ে গঠিত উপজেলার আয়তন ২৩০.১২ বর্গ কিলোমিটার । গাইবান্ধা শহর হতে ১১ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত । এই উপজেলা উত্তরে সুন্দরগঞ্জ ও মিঠাপুকুর রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলা দ্বারা বেষ্টিত । এ উপজেলাটি প্রায় ২৫ ডিগ্রী ১৭ ফুট ও ২৫ ডিগ্রী ৩১ ফুট উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৯ ডিগ্রী ২০ ফুট ও ৮৯ ডিগ্রী ৩২ ফুট পুর্ব দ্রাঘিমাংশর মধ্যে অবস্থিত । ঘাঘট নদী উপজেলার মধ্য দিয়ে প্রবহমান।

কথিত আছে বহুপুর্বে এই এলাকা জঙ্গলে পরিপূর্ণ ছিল । হিন্দু রাজা ও জমিদারদের একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল। এক সময় সাইদুল্লাহ নামে এক ধর্মীয় সাধক এই এলাকায় এসে ধর্ম প্রচারের কাজ শুরু করেন । তার নামানুসারে উপজেলার নাম রাখা হয় সাদুল্লাপুর । সাদুল্লাপুরের ৮৫%  মুসলমান ও অবশিষ্ট হিন্দু ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বী। এলাকার ৮০% লোক কৃষির উপর নির্ভরশীল । মানুষরা বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত । বহুপূর্ব হতে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যবহনকারী এ উপজেলা সবারই দৃষ্টি আকর্ষণ করে আসছে। শিক্ষার দিক দিয়ে ও সাদুল্লাপুর উপজেলা পিছিয়েনেই । শিক্ষার পাশাপাশি স্থানীয় লোকদের উৎসাহে ও পৃষ্ঠপোষকতায় বেশ কতকগুলি চিত্ত বিনোদনমূলক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে । উপজেলার শিক্ষার উৎকর্ষ বিধানে প্রায় ১১ টি মহাবিদ্যালয়, ৬১ টি হাইস্কুল, ১৯৬ টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৯২ টি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩৩টি মাদ্রাসা এবং ৬৮ টি এবতেদায়ী মাদ্রাসা আছে । শিক্ষার হার ৩৩.৬৬% । উপজেলার মধ্যে প্রায় ৬ কি.মি. রেলপথ রয়েছে । নলডাঙ্গা রেল স্টেশন প্রাচীন ঐতিহ্যের জন্য উত্তরবঙ্গে সুপরিচিত।